বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ অক্টোবর ১৯৭৮
গল্প/কবিতা: ২টি

গল্প - বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী (নভেম্বর ২০১৭)

ভিক্ষুকের লজ্জা

সেলিনা জাহান প্রিয়া
comment ৯  favorite ০  import_contacts ৯৬
এক গ্রামের স্কুল মাঠে এক রাজনীতিবিদ বক্তব্য দিচ্ছে । সবাই তাঁর বক্তব্য শুনে হাত তালি দিচ্ছে । সেই স্কুল মাঠের এক কোনে এক ভিখারি ভিক্ষা করছিল ।
বক্তব্য শেষ করে রাজনীতিবিদ স্কুল মাঠ ছেরে তাঁর গাড়ির দিকে যাচ্ছিল । গাড়িটা ভিক্ষুকের পাসেই রাখা ছিল । রাজনীতিবিদ গাড়িতে উঠার আগে সেই ভিক্ষুক কে ১০ হাজার টাকা দিল । তখন বৃদ্ধা ভিক্ষুক রাজনীতিবিদ কে বলল
বাবা আপনি কে ? আমাকে এত টাকা দিলেন ।
ঃ- রাজনীতি বিদ বলল আমি অমুক রাজনীতি দলের নেতা ।
ঃ- ভিক্ষুক বলল বাবাজি আপনার কাজ কি ?
ঃ- এই তো জন সেবা , দেশের উন্নতি ,
ঃ- ভিক্ষুক বলল ! বাহ চমৎকার কিন্তু কি কাজ করেন ?
ঃ- এই তো রাজনীতি করি ?
ঃ- ভিক্ষুক বলল এটা কি কোন ব্যবসা , চাকুরী , খামার , ফারম , কোম্পানি বাবাজি ।
ঃ- না চাচা এটা দেশ সেবার কাজ ।
ঃ- ভিক্ষুক বলল তাহলে বাবাজি আপনার সংসার , পরিবার , তাঁদের খাবার চিকিৎসা , লেখা পড়া কি ভাবে চলে ?
ঃ- এই আঙ্কেল চলে আর কি আল্লায় চালায় ।
ঃ- ভিক্ষুক বলল স্যার আমি তু ভিক্ষা করি আমাকে আল্লায় চালায় । আপনি কি কাজ করেন জে আল্লাহ আপনাকে গাড়ী বাড়ি আর কোটি কোটি টাকা দিয়েছে জে আপনি আমার মতো ভিক্ষুক কে ১০ হাজার টাকা দান করলেন ।
ঃ- চাচা সেটা আপনি বুঝবেন না।
ঃ- ভিক্ষুক বলল স্যার আপনার কল কারখানা নাই , কৃষি কাজ নাই , চাকুরী করেন না , ব্যবসা ও করেন না । তাহলে আপনি এত টাকা কি ভাবে দান করেন ? আমি এই টাকা নেব না। বলে ভিক্ষুক সেই ১০ হাজার টাকা ফেরত দিয়ে বলে
বাবা জীবনে যদি কোন দিন কোন কাজ করে , পরিশ্রম করে টাকা কামাতে পারেন তাহলে সেই টাকা দান করবেন । সেই টাকা নিতে আমি গর্বিত । আপনার ১০ হাজার টাকায় আমি কিছু দিন ভাল চলব কিন্তু আমার সভাব নষ্ট হবে । আমি ২ বা ১০ , ৫ টাকায় খুব ভাল আছি ।
ঃ- রাজনীতিবিদ টাকাটা হাতে নিয়ে গাড়িতে উঠে বসল ।
এমন সময় এক লোক বলল শ্যালা ভিখারি নীতি কথা বলে ! এমন সময় ভিখারি বলল দেখ ভাই জে লোকের কোন কাজ নাই , বেকার , আমি কি করে তাঁর টাকা নেই । আমি তো ভিক্ষা করি ডাকাতি করি না। তুমি কি আমাকে ডাকাত হতে বলছ । আমি ভিখারি হতে পারি আমার ইজ্জত আছে আমি অবাক হই রাজনীতিবিদদের থেকে কাজ কাম নাই কিন্তু চলে রাজার মতো । আসলে তারা ভিখারির চেয়ে ভিখারি তাঁদের কাছ থেকে টাকা নিতে তাই আমার লজ্জা হয় ।।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন