বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৮ মে ১৯৯৫
গল্প/কবিতা: ৬টি

সমন্বিত স্কোর

৫.২

বিচারক স্কোরঃ ২.৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.৪ / ৩.০

মানুষ তুমি মানুষ হলে না

আঁধার অক্টোবর ২০১৭

ভয়ের ভয়াবহতা

ভৌতিক সেপ্টেম্বর ২০১৭

হোসনে আরা

কামনা আগস্ট ২০১৭

কবিতা - ঋণ (জুলাই ২০১৭)

মোট ভোট ৩২ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৫.২ এ ঋণ বাবার হতে নেয়া

নূরনবী
comment ১৭  favorite ০  import_contacts ৬০২
বাবা, তোমার বুড়ো আঙ্গুলের নখটা কাটো না কেন?
বাবা বললে, মনে থাকে না।
সপ্তাহের নির্দিষ্ট দিনে,
আমার হাতের-পায়ের নখ কেটে দিতে তো তোমার ঠিক মনে থাকে!
বাবা, তোমার শার্টের কলারটা একদম নরম হয়ে গেছে!
বাবা বললে, ও কিছু হবে না। আমার শার্ট আরো আছে তো।
আমারও নতুন শার্ট না হলে কিছু হতো না! আমারও তো আরো শার্ট আছে।
বাবা, তোমার সাথে শুকনো মরিচ দিয়ে একটু পান্তা খাই?
বাবা বললে, না না তোর ঠাণ্ডা লেগে যাবে বাবা।
তবে কি বাবা, তোমার ঠাণ্ডা লাগে না?
কতটা দয়া তুমি নিত্যদিন আমার জন্য চাষ করো!
আর আমিও কেমন, পিঁপড়ের মত শুধু তোমার গন্ধেই মিষ্টতা খুঁজে পাই।
তোমার ছায়ায় খুঁজে পাই, বেঁচে থাকার স্বাদ!
বাবা, তোমার আঙ্গুল আমায় করেছে ঋণী।
কত হাটে-ঘাটে ভিড় ঠেলেছি তবুও তোমার আঙ্গুল আমায় ছাড়েনি!
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন