বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ মার্চ ১৯৯৭
গল্প/কবিতা: ১৯টি

স্মৃতির জলে ভেজা হারানো শৈশব

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

ছলনা যখন নারীর মনে

বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী নভেম্বর ২০১৭

এখনও আমি সোহানাকে খুজি

বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী নভেম্বর ২০১৭

কবিতা - অধরা (জানুয়ারী ২০১৮)

অধরা

মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
comment ২২  favorite ০  import_contacts ৩২৩
প্রিয় অধরা, নৈঃশব্দের বাক্যে পড়ে থাকা কিছু অঙ্কিত ছায়াচিত্রে কুঁড়িয়ে পাওয়া
অরুণোপলক অশ্রু থেকে জানতে পেরেছি;
কোনো এক বসন্তের দ্বিপ্রহরের কুয়াশা ত্যাগ করে আসার কথা ছিল তোমার
শত অভিমানকে ঝেড়ে ফেলে কথা ছিল একটি পড়ন্ত বিকেল উপহার দেওয়ার,
রোদে পোড়ে ছাই হওয়া প্রেমের কিছু গল্প শুনানোর
নিকোটিনের ধ্রুপদী নিশ্বাস ফেরাবার...!

অথচ কত বিকেলের কোল ঘেঁষে সন্ধ্যা ফিরে পেয়েছে তার নীরব রাত্রি
মেঘলা আকাশ দূরে সরে গিয়ে ধরণীর বুকে ঢেলে দিয়েছে পূর্ণিমার চাঁদনি,
শিউলি, রজনীগন্ধা, কৃষ্ণচূড়া, গোলাপ, হাসনাহেনা পৃথিবীকে দিয়ে গেছে সৌরভের মহল।
আর তুমি বরষার মৌসুম দিয়ে গেলে অবধি আজও...!!

ভেবেছি হয় তো কোন একদিন ফিরবে তুমি;
প্রাসাদের জ্বলন্ত বুকে ঢেলে দিবে এক চিমটে কার্বন ডাই-অক্সাইড
অনাবিল মিষ্টি স্বপ্ন নিয়ে তৃষ্ণার পাথুরে জড়িয়ে দিবে তৃপ্ত ভালোবাসা।
কিন্তু আজও ফেরা হল না তোমার,
আজও স্রোতের প্লাবনে ভেসে যায় যুগান্তর
বিষাদের নীল ঘাম বুকে নিয়ে কেটে যায় রাত্রি- দিন।

এই রাতের নিস্তব্ধ প্রহর জুড়ে আমি হাট বসাই অভিমানের
হাজার রাত্রি জেগে ইনসমনিয়ার
মরীচিকার বিভ্রমে পোড়ে ছাই হয়ে আবার বেঁচে থাকার।
এভাবে নিঃসঙ্গ কাকতাড়–য়ার মত আমি বোধ করি জীবনের মূল্য
সমুদ্রের তলদেশে নীল তিমি আর অক্টোপাসের রাজত্ব,
গহীন অরণ্যে আলো আঁধারীর ভিড়ে নক্ষত্রের ঘুম
চোখের পলকে নিখোঁজ হয়ে ফিরে না পাওয়ার অস্তিত্ব।

কিন্তু অধরা কখনও ভেবে দ্যাখোনি, মুঠো মুঠো ছাই ছাড়িয়েছি বিতৃষ্ণার আগুনে
মধ্যরাতের নিস্তব্ধতায় হারিয়ে ফেলেছি কত মায়াবী স্বর্গ
ধূসর চিত্রলিপির ক্যানভাসে ঢেউ তুলেছে বিষাক্ত সীসার
এক জীবনের পুরোটা আকাশ আজ দখলে নিয়েছে দুরন্ত মেঘেরা।

জানো অধরা, শেকলহীন মুক্ত আকাশের নীচে আর থাকার ইচ্ছা জাগে না,
ইচ্ছা জাগে না সাজিয়ে নিতে দূরগামী নীলিমা।
তবুও তোমার স্মৃতি এঁকে যায় এ হৃদয়ের অতল গহ্বরে, ধ্রুপদী জোৎস্নার বুকে
দু’চোখের ঢেউয়ে আঁকি নিশি- চন্দ্রিমার স্বপ্নের চাষাবাদ কিংবা অস্তাগামী সূর্যের অস্তাচল
আর আশা বেধে রাখি- সব পালাভেঙ্গে একদিন তুমি ফিরবে...!!
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন