বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ মার্চ ১৯৯৭
গল্প/কবিতা: ২১টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৯৭

বিচারক স্কোরঃ ১.৮৭ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.১ / ৩.০

জীবন নদীর মত বহমান

রমণী ফেব্রুয়ারী ২০১৮

দু'চোখের কোণে জমে উঠা নিলীণ অশ্রু

রমণী ফেব্রুয়ারী ২০১৮

অধরা

স্বপ্ন জানুয়ারী ২০১৮

কবিতা - আঁধার (অক্টোবর ২০১৭)

মোট ভোট ৫৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৯৭ নীরবে ভিজতে থাকা এক ইষ্টিশান

মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
comment ২৪  favorite ০  import_contacts ৪২২
সযত্নে আমি গোপন করে রেখেছি, নীল খামে জমা রাখা কিছু স্মৃতিপট
বিমর্ষ রাতের অথিতি মনে করে চোখের কোণে লুকিয়ে থাকা নোনাজল,
রুমালের ভাঁজে গুঁজে রাখা সে নীল জোছনা কিংবা হঠাৎ আঁতকে উঠা আর্তনাদ।
.
স্মৃতির হিম রেনুতে সাজিয়ে রেখেছি আল্পনার অশ্রু
সাদা- কালো ডাইরীতে কারও দেওয়া বিষাদের ঢেউ,
এ বুকের এপিটাফে নির্লিপ্ত হয়ে আছে প্রতিটি সবুজ পলক।
.
খুব আপন করে রেখে দিয়েছি, তুলিতে আঁকা কারও জীবন্ত ছবি
হলুদ দলীলে লুকানো জ্যান্তপ্রেমের এক প্রামাণ্য চিত্র,
সিঁদুরে আবদ্ধ রাখা সিঁথিতে মাখা ভালোবাসার এক মায়াজাল।
.
হাতে এঁকে রেখেছি নিকষ কালো রাতের বিষাদ ভরা বৈভব
হৃদয়ের কোণে কালি ঝুলি মাখা অঙ্কিত কোনো ছায়াচিত্র,
কুয়াশার নীল চাদরে ভেসে আসা কিছু অভিমান।
.
ইচ্ছে ছিল একদিন এ সব ভুলে যাবো, জীবনটাকে সাজাবো নতুন কিছু পংক্তিমালা দিয়ে!
ভেবেছি সুখ গুলো একদিন কবিতা হয়ে ফিরে আসবে, নিজস্ব কোনো অনুভূতি নিয়ে!
অথচ যতবার চেয়েছি ততবারই ফিরেছি, এসিডের বিষাক্তের ছোঁয়ার মত করে!
অবশেষে সিথানে বালিশের বুকে জমে উঠা মলিন চিঠির প্রতিটি বাক্যে আমাকে মনে করে দেয়,
জীবনের সুখ গুলো হলো- বহুবছর ট্রেনের অপেক্ষায় নীরবে ভিজতে থাকা এক ইষ্টিশান।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন