বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৫ নভেম্বর ১৯৭১
গল্প/কবিতা: ২৮টি

সমন্বিত স্কোর

৪.৫৫

বিচারক স্কোরঃ ২.১৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.৪ / ৩.০

মধ্যরাতের নারী

নগ্নতা মে ২০১৭

নির্মোহ নৈশব্দে

নগ্নতা মে ২০১৭

তিনি শুদ্র...অচ্ছৎ?

অবহেলা এপ্রিল ২০১৭

কবিতা - ডিজিটাল ভালবাসা (নভেম্বর ২০১৬)

মোট ভোট ১৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.৫৫ এ কেমন ভালবাসা?

আল মামুন খান
comment ১৩  favorite ১  import_contacts ৬১২
ভালবাসা যুগে যুগে নিজস্ব রূপে
পাড়ি দিয়েছে হৃদয়ের তেপান্তর
চলুন দেখে আসি আজ
কেমন ছিল ভালবাসার সেই যুগীয় রুপান্তর?

একটা সময় ছিল যখন কেউ ভালবাসার জন্য
'দুরন্ত ষাড়ের চোখে লাল রুমাল' বেঁধে দিতেও দ্বিধা করেনি।
'প্রেয়সীর জন্য 'বিশ্বসংসার তন্নতন্ন করে খুঁজে এনেছে ১০১ টি নীল পদ্ম'!
সেই ভালোবাসা এখন
ডিজিটাল যুগের ভার্চুয়াল জগতে এসে ধুঁকছে অবিরত!

আমাদের অ্যানালগ সময়ে
নীল খামে নীল কাগজে হৃদয়ের কথাগুলো
যরীন হরফে লেখা থাকত!
কুহকী প্রহর অণুক্ষণ উদ্বেগ উৎকন্ঠায় ভেসে ভেসে
পাশের বাড়ির সেই মেয়েটির ছবি
হৃদয়েই কেবলি আকত!

অব্যক্ত কথাগুলো প্রকাশের সেই দৃষ্টিভঙ্গি এখন
বিস্মৃতির অতলে হারিয়ে গেছে!
বিনিদ্র রজনী জেগে জেগে প্রিয়াকে এখন
ভালবাসার পংক্তিগুলো আর লেখা হয় না
অনিশ্চযতার দুরু দুরু বুকের কাঁপুনি এখন
এসএমএস আর ইনবক্সে গিয়ে মুখ থুবড়ে পড়ে।

এখন আর বাড়ীর ছাদে কিংবা খোলা মাঠের
বিস্তীর্ণ ধানি ফসলের ভিতর দিয়ে হেঁটে যেতে যেতে-
প্রেয়সীর খোঁপায় জড়ানো বেলী ফুলের তাজা নির্যাস
মনকে আকূল করার সময় পায় না।
চিঠি চালাচালির সেই উত্তেজনা এখন অ্যানালগ যুগের দামী এন্টিকস!
প্রেয়সীর বুকের সাথে সাময়িক মিশে থাকা সেই নীল খাম
প্রিয়ার পরিচিত সুবাস এখন আর বয়ে বেড়ায় না।

এখন মাংসল হৃদয়ের যান্ত্রিক কথাবার্তা
কী-বোর্ডের ইলেক্ট্রনিক ঘ্রাণকে সাথে নিয়ে স্কাইপের দ্বারস্থ!
কালো অক্ষরে হৃদয়ের লাল অনুভূতি এখন
ভালবাসার সিম্বোলিক কনভার্সনেই তৃপ্তির স্বাদ আস্বাদনে ব্যস্ত!
দামী রেস্টুরেন্টে উচ্চ কোলেষ্টরেল যুক্ত খাবার
আর দামী গিফট এর পিছনে নিরন্তর ছুটে চলে ডিজিটাল ভালবাসা।

প্রযুক্তি স্থানিক দূরত্বকে কমালেও
মনের দূরত্বকে বাড়িয়েছে
দু'জনের কাছে আসাটা আগে ছিল বড্ড কঠিন!
তবে মনের দূরত্ব ছিল না সেথায় একটুও।
এখন সহজে কাছে আসে হৃদয়গুলি
দুই মেরুতে অবস্থান ও নেয় পলকে।
মেকি সিম্বোলিক ভালবাসার ভিতর এখন প্রেয়সীর বুকের চাঁপা ফুলের ঘ্রাণ নেই!
সেখানে শুধুই যান্ত্রিক ঘ্রাণ আর ছলনার ইতিহাস।

এখন কবিগুরু ও নেই
ভালোবাসাও এখন তাঁর মতো ছন্দে ছান্দসিক নয়।
ভালোবাসা কি? এর উত্তরে বলেছিলেন তিনি-
"ভালবাসার কোন কথার
কি বা অর্থ-মানে?
ভালো যারা বেসেছিল
তারাই ভালো জানে"।
ভালোবাসা এখন যারা ভালোবাসেন তাঁদের নিজস্ব নিগুঢ় অর্থে দীপ্তমান!
বহুরূপী ছদ্মবেশী ডিজিটাল ভালবাসা
নিরন্তর পোড়াতে জানে কেবলি
জাগায় না কোনও আশা!
এখন.. কেবলি মিথ্যে এ ভালবাসা।।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন